আন্তর্জাতিক শ্রমজীবী নারী দিবসে তিন কৃতী নারীর ভাবনা-ভুবন

Published by: Susovan Pramanik |    Posted: March 8, 2021 9:30 pm|    Updated: March 9, 2021 2:51 pm

Published by: Susovan Pramanik Posted: March 8, 2021 9:30 pm Updated: March 9, 2021 2:51 pm

প্রত্যেক বৃহত্তর প্রতিবাদ আর সংগ্রামের ইতিহাসই রক্তক্ষয়ী। আর যদি সেটা অধিকার প্রতিষ্ঠার লড়াই হয়, রক্ত তো ঝরবেই। ১৮৫৭-এ মজুরিবৈষম‌্য, কাজের সময় নির্ধারণ, কর্মক্ষেত্রে অমানবিক পরিবেশের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে শুরু হয়েছিল প্রতিবাদ। সুতো কারখানার নারী শ্রমিকরা রাস্তা অবরোধ করে প্রতিবাদ শুরু করেছিলেন। মিছিলে শুরু হয় সরকারি লেঠেল বাহিনির অত‌্যাচার। ১৯০৯-এর ২৮ ফেব্রুয়ারি নিউইয়র্ক সিটিতে সোশ‌্যাল ডেমোক্র‌্যাট নারী সংগঠনের পক্ষ থেকে নারী সমাবশের আয়োজন করা হয়। সমাবেশের নাম হয় ‘আন্তর্জাতিক শ্রমজীবী নারী দিবস’। এটাই ছিল সর্বপ্রথম ‘আন্তর্জাতিক শ্রমজীবী নারী দিবস’। যার নেতৃত্ব দেন জার্মান সমাজতান্ত্রিক নেত্রী ক্লারা জেটকিন।

দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক শ্রমজীবী নারী দিবস পালন করা হয় ১৯১০ খ্রিস্টাব্দে ডেনমার্কের কোপেনহেগেনে। ১৭টি দেশ থেকে ১০০ জন নারী প্রতিনিধি এই সমাবেশে যোগ দিয়েছিলেন। তারপর থেকে প্রতি বছরই এই সমাবেশে আয়োজিত হয়। নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠার এই লড়াই আজও চলছে। সারা বিশ্বে কাজের স্বীকৃতির ছাপ রাখলেও আজও তাঁরা ব্যাকফুটে, কমবেশি সমাজের প্রতিটা ক্ষেত্রেই। কর্মক্ষেত্রে বৈষম‌্য, শ্লীলতাহানি, ধর্ষণ আজও চলছে সমানতালে।

‘Women in leadership: Achieving an equal future in a COVID-19 world’। ২০২১-এর উওমেন’স ডে-এর এটাই মূলমন্ত্র। প্রতি বছর ৮ মার্চ এই দিনটি সারা বিশ্বে পালন করা হয়। ঘরে-বাইরে মহিলাদের কাজের স্বীকৃতি দেওয়া, কর্মক্ষেত্রে পুরুষ-মহিলাদের সমান অধিকারের দাবি এখনও সোচ্চার। পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে নানাভাবে উদ্‌যাপন করা হয় দিনটি। কোথাও নারীর প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান জানানো হয়, কোথাও আবার সমাজের বিভিন্ন স্তরে তাঁদের কাজের স্বীকৃতি দেওয়া হয়। কোথাও আবার সমর্থন করা হয় কর্মক্ষেত্রে নারী-পুরুষের সমান অধিকারের দাবিকে।

আন্তর্জাতিক শ্রমজীবী নারী দিবস নিয়ে নিজেদের ভাবনা ভাগ করে নিলেন অভিনেত্রী-সঞ্চালক রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়, মনস্তত্ত্ববিদ রত্নাবলী রায় এবং উদ্যোগপতি রচিতা দে। টিম ‘শোনো’-র তরফে শুনলেন শ্যামশ্রী সাহা।
পুরো কথোপকথনটি শুনুন ওপরের প্লে বাটনে ক্লিক করে…

লেখা: শ্যামশ্রী সাহা
পাঠ: সুশোভন প্রামাণিক
আবহ: শঙ্খ বিশ্বাস

পোল