সাড়ে ন’কোটি টাকায় বিক্রি হল আইনস্টাইনের লেখা চার গুরুত্বপূর্ণ চিঠির একটি; রয়েছে আপেক্ষিকতাবাদের সূত্রের উল্লেখও

Published by: Susovan Pramanik |    Posted: May 23, 2021 9:24 pm|    Updated: May 23, 2021 9:24 pm

Published by: Susovan Pramanik Posted: May 23, 2021 9:24 pm Updated: May 23, 2021 9:24 pm

একটা চিঠির দাম ১.২ মিলিয়ন ডলারেরও বেশি, ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ন’কোটি টাকা। দাম শুনে চোখ কপালে উঠবে, একথা অনস্বীকার্য। তবে এই চিঠি তো আদতে কোনও সাধারণ চিঠি নয়, পত্রলেখকের নাম যখন অ্যালবার্ট আইনস্টাইন!

তা এহেন সেই চিঠি কি ব্যাক্তিগত কোনও প্রেমপত্র নাকি বিজ্ঞানের কোনও জটিল আলোচনা? কী ছিল সেই চিঠিতে?

এই চিঠিতেই আইনস্টাইন তাঁর সবথেকে বিখ্যাত আবিষ্কার, আপেক্ষিকতাবাদের সূত্র, E=mc2 সমীকরণটি লিখেছিলেন, যা বরাবরের মতো পদার্থবিজ্ঞানের জগৎকে বদলে দিয়েছে।

ক্যালিফোর্নিয়ার ‘ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি’ এবং ‘হিব্রু ইউনিভার্সিটি অফ জেরুজালেম’-এর ‘আইনস্টাইন পেপার্স প্রজেক্ট’ অনুযায়ী, আইনস্টাইন নিজের হাতে E=mc2 সমীকরণটি গোটা জীবনে মাত্র চারবার লিখেছিলেন। চারটি চিঠিতে। নিলাম হওয়া সংশ্লিষ্ট চিঠিটি সেই চার বিরল চিঠির একটি। বাকি সবক’টিই রয়েছে কোনও না কোনও জাদুঘরে। একমাত্র এটিই এতদিন ব্যক্তিগত সংগ্রহে ছিল। চিঠিটি আইনস্টাইন লিখেছিলেন ১৯৪৬ সালের ২৬ অক্টোবর, পোলিশ-মার্কিন পদার্থবিজ্ঞানী লুডভিগ সিলভারস্টাইনকে।

জার্মানিতে বসে আইনস্টাইনের আপেক্ষিকতাবাদের তত্ত্বকে চ্যালেঞ্জ করেছিলেন লুডভিগ। এরপরই প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি লেটারহেডে জার্মান ভাষায় এই চিঠি লেখেন আইনস্টাইন। লুডভিগকে দেওয়া আইনস্টাইনের প্রত্যুত্তর খানিক এরকম ছিল, ‘আপনার প্রশ্নের উত্তর, আর কিছু না বলে শুধু E=mc2 সূত্র থেকেই দেওয়া যেতে পারে।’ লুডভিগের  মৃত্যুর পর তাঁর উত্তরাধিকারীরা তাঁর ব্যক্তিগত সংগ্রহের সব জিনিসপত্র বিক্রি করে দিয়েছিলেন। সেই বিক্রীত জিনিসপত্রের মধ্যেই ছিল এই দুর্মূল্য চিঠিটি।
বোস্টনের  নিলামকারী সংস্থা ‘আর আর অকশন’ অনুমান করেছিল, E=mc2 উল্লিখিত চিঠিটির দাম উঠতে পারে বড়জোর চার লক্ষ ডলারের মতো। কিন্তু, কার্যক্ষেত্রে চিঠিটি বিক্রি হল প্রত্যাশিত মূল্যের তিনগুণেরও বেশি দামে! গত ১৩ মে শুরু হয়েছিল নিলাম। যা চলে অন্তত এক সপ্তাহ ধরে। পাঁচজন ক্রেতা এই চিঠিটির জন্য দর হেঁকেছিলন। সাত লক্ষ ডলার দাম ওঠার পর টিকেছিলেন মাত্র দু’জন দরদাতা। নিলামে এক অজ্ঞাতনামা ব্যক্তি ওই বিপুল দামে চিঠিটি সংগ্রহ করেছেন।
শুনে নিন….

লেখা: সুশোভন প্রামাণিক, অম্লান দত্ত
পাঠ: সুশোভন প্রামাণিক
আবহ: শঙ্খ বিশ্বাস

পোল