তাক করা তালিবানি বন্দুকের মুখে নির্ভয়ে দাঁড়িয়ে আফগান মহিলা, কুর্নিশ বিশ্ববাসীর

  • Published by: Saroj Darbar
  • Posted on: September 8, 2021 6:24 pm
  • Updated: September 8, 2021 6:24 pm

সামনে বন্দুক উঁচিয়ে দাঁড়িয়ে তালিবান। মৃত্যু যেন নিঃশ্বাস ফেলছে সামনে। তবে সেই ভয়ের তোয়াক্কা না করেই দাঁড়িয়ে আছেন এক আফগান মহিলা। সম্প্রতি এরকমই একটি ছবি ছড়িয়ে পড়েছে নেটদুনিয়ায়। যা দেখে অকুতোভয় ওই মহিলাকে কুর্নিশা জানাচ্ছেন সকলে।

বন্দুকের নলই ক্ষমতার উৎস। একটু ঘুরিয়ে যেন এই কথাটাই সত্যি হয়েছে আফগানিস্তানের ক্ষেত্রে। অর্থাৎ, সাধারণের হাতে ক্ষমতার হস্তান্তর নাকি জেহাদিদের ক্ষমতাদখল, তা নিয়ে প্রশ্নের অবকাশ থাকছে। আর সে বিতর্কও চলবে। তবে রাতারাতি বন্দুক উঁচিয়েই যে আফগানভূমের ক্ষমতা দখল করেছে তালিবান, এ নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

আরও শুনুন: শ্রীনগরে উধাও ড্রাই ফ্রুট, আফগানিস্তান তালিবানি কবজায় যেতেই রং হারাচ্ছে কাশ্মীরের বিয়ের মরসুম

ক্ষমতা দখলের পর থেকেই তালিবানদের দেখা গিয়েছে বন্দুক উঁচিয়ে চলতে। সংবাদ পাঠকের ঘাড়ের সামনে উঁচিয়ে রাখা হয়েছে অত্যাধুনিক রাইফেল। প্রতিবাদীদের দিকে ছুটে গিয়েছে বুলেট। এমনকী দেশ ছাড়া মানুষদের প্রতিও নির্বিচারে গুলি চালিয়েছে তালিবান। বন্দুকের নলই যে তাদের কাছে ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রাখার অস্ত্র, এ কথা পদে পদে প্রমাণ করে চলেছে তালিবান। কিন্তু এর বিপরীতেও একটা ছবি থাকে। প্রিয় দেশের জন্য যেখানে জীবন-মৃত্যুকে পায়ের ভৃত্য করতেও পিছপা হয় না দেশবাসী। সম্প্রতি তারই নমুনা দেখা এক প্রতিরোধ আন্দোলনের সময়।

আরও শুনুন: সিলেবাসে ফিরুক মহাশ্বেতা দেবীর ‘দ্রৌপদী’, চাইছেন শাবানা-অরুন্ধতী

নেটদুনিয়ায় যে ছবিটি ছড়িয়ে পড়েছে, তাতে দেখা যাচ্ছে পাকিস্তান বিরোধী এক প্রতিবাদী জমায়েতের দিকে বন্দুক উঁচিয়ে আছে এল তালিবানি যোদ্ধা। বন্দুকের নল সরাসরি এক মহিলার দিকে তাক করা। কিন্তু তাতে হেলদোল নেই সেই মহিলার। যেন বন্দুক বলে কোথাও কিছু নেই। তিনি অকুতোভয়। নির্ভীক হয়ে তাঁর প্রতিবাদ জারি রেখেছেন।

এই ছবি বিশ্ববাসীর কুর্নিশ আদায় করে নিয়েছে। এ নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই যে, তালিবানি জমানায় আফগান ভূমে সবথেকে বিপদে পড়েছেন মহিলারাই। তাদের উপর নেমে এসেছে হাজারও ফতোয়া। চলছে অত্যাচারও। এর আগে জানা গিয়েছিল, তালিবানি যোদ্ধাদের যৌনদাসীর চাহিদা পূরণ করতে কফিনে করে পাচার করা হচ্ছে মহিলাদের। অফিস, কাছারিতে কাজে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। এমনকী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাসেও যাতে তাঁদের মুখ কেউ না দেখতে পায়, সেই কারণে তাঁদের আশেপাশে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে ভারী পর্দা। আর অত্যাচার!

বাকি অংশ শুনে নিন প্লে-বাটন ক্লিক করে।

আরও শুনুন
queen Elizabeth lived an a palace without a name in her childhood

প্রাসাদে কীভাবে থাকতে হত রাজকন্যাদের? রাজবাড়ির গুপ্তকথা ফাঁস করেছিলেন রানি

বিলাসী জীবন নাকি সাধারণ শৈশব! শুনে নিন।

Team সংবাদ প্রতিদিন শোনো

News Bulletin: Current News for the day 30 December 2021

30 ডিসেম্বর 2021: বিশেষ বিশেষ খবর- রাজ্যে এখনই নয় লকডাউন, ওমিক্রন আতঙ্কের মধ্যেই আশ্বাস মুখ্যমন্ত্রীর

শুনে নিন আজকের বিশেষ বিশেষ খবর।

Team সংবাদ প্রতিদিন শোনো

know about Murshidkuli Khan, the first Nawab of Bengal

তাঁর মৃতদেহের উপরে পড়ুক মানুষের পায়ের ছাপ, চেয়েছিলেন বাংলার এই নবাব

কে এই নবাব? শুনে নিন।

Team সংবাদ প্রতিদিন শোনো

মিস করবেন না!
Why This village hasn't seen a childbirth in Four Hundred Years

৪০০ বছরে এই গ্রামে জন্মায়নি কোনও শিশু, কেন জানেন?

এই আশ্চর্য গ্রামের কথা শুনে নিন প্লে-বাটন ক্লিক করে।

Team সংবাদ প্রতিদিন শোনো

Currency note issued by Azad hind bank with picture of Netaji

টাকায় নেতাজির ছবি… কোথায় কেন প্রচলিত হয়েছিল এই মুদ্রা?

নেতাজির স্বপ্নের সাক্ষী এই নোটগুলি।

Team সংবাদ প্রতিদিন শোনো

scientists claim that electricity may be generated by human poop

কয়লার বদলে মানুষের মল ব্যবহার হবে জ্বালানির কাজে, দাবি বিজ্ঞানীদের

কীভাবে কাজে লাগানো যাবে মানুষের বর্জ্য? শুনে নিন।

Team সংবাদ প্রতিদিন শোনো

Icefish breeding colony discovered bottom of the Weddell Sea

বরফের চাদরের ১০০০ ফুট নিচে বসতি ৬ কোটি মাছের… হদিশ পেয়ে তাজ্জব বিজ্ঞানীরা

কোথায় মিলবে এই আশ্চর্য মাছের কলোনি? শুনে নিন।

Team সংবাদ প্রতিদিন শোনো