বিপুল অঙ্কের জরিমানা, প্রতিযোগিতা থেকে বহিষ্কারের তোপ সত্ত্বেও নাওমি ওসাকা সিদ্ধান্তে অবিচল

Published by: Susovan Pramanik |    Posted: May 31, 2021 9:38 pm|    Updated: May 31, 2021 10:26 pm

Published by: Susovan Pramanik Posted: May 31, 2021 9:38 pm Updated: May 31, 2021 10:26 pm

এমনিতে ফরাসি ওপেনের ক্লে কোর্টে নাওমি ওসাকাপারফরম্যান্স খুব দারুণ এমন বলা যাবে না। কোনওবারেই তৃতীয় রাউন্ডের বেশি এগতে পারেননি। ২৯ মে-র রোদ ঝলমলে ফিলিপ চ্যাটরিয়র কোর্টে রোমানিয়ার প্যাট্রিসিয়া মারিয়া তিগকে ৬-৪, ৭-৬ সেটে পরাজিত করে, পরপর টানা ১৫টি ম্যাচ জিতলেন তিনি। পরের রাউন্ডে রোমের টেনিস তারকা অ্যানা বোগদানের বিরুদ্ধে তাঁকে লড়াই করতে হবে।

ম্যাচ জেতার পর টুর্নামেন্টের নিয়ম অনুযায়ী সাংবাদিক সম্মেলন ছিল। কিন্তু তিনি তাঁর সিদ্ধান্তে অনড় থেকে খেলার শেষে সাংবাদিক সম্মেলন করেননি। এই কারণে তাঁর ১৫ হাজার ডলার জরিমানা হয়। মিডিয়া বয়কটের কারণে ডব্লিউটিএ-র নিয়ম অনুযায়ী সর্বোচ্চ ২০ হাজার ডলার পর্যন্ত জরিমানার নিয়ম আছে। জয় এবং জরিমানার এমন যুগপৎ সম্মিলনে তাঁর এই টুর্নামেন্টের শুরু।

নোভাক জকোভিচ বা রাফায়েল নাদালের মতো তারকারাও তাঁর এই একগুঁয়ে মানসিকতার বিরোধিতা করেছেন। ওসাকা অবশ্য এইসব বিশেষ গায়ে মাখছেন না। তিনি সাংবাদিক সম্মেলনের বদলে দর্শকদের প্রশ্নের উত্তর অতি স্বছন্দে দিয়েছেন। এবং জানিয়েছেন সাংবাদিক সম্মেলন না-করার জন্য যে-জরিমানা তাঁর হবে, তা দিতে তিনি একেবারেই প্রস্তুত। শুধু একটাই শর্ত, সেই টাকা যেন কোনও মানসিক স্বাস্থ্যসংস্থা অথবা মনোরোগীদের কল্যাণে ব্যবহৃত হয়। তাঁর সিদ্ধান্ত থেকে তিনি যে এক পা-ও পিছু হটবেন না, এ নিয়ে তিনি একেবারে ১০০ শতাংশ প্রত্যয়ী।

এদিকে রোলাঁ গারো অফিশিয়াল তাঁকে তাঁর সিদ্ধান্ত বিবেচনার জন্য জানিয়েছে। অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, রোলাঁ গারো, উইম্বলডন এবং যুক্তরাষ্ট্র ওপেন এই চার খেতাবি সংস্থা একটি যৌথ বিবৃতিতে জানিয়েছে, তারা ক্রীড়াবিদের ভাল থাকা বিষয়ে ওয়াকিবহাল, কিন্তু একগুঁয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে আলোচনা প্রয়োজন। সবকিছুর একটা গুরুত্ব রয়েছে, তাঁর সমস্যার কথা মাথায় রেখে খানিক তাঁর মতো করে কোনও পন্থা, আলোচনার মাধ্যমে বের করা যেতেই পারে। তা বলে তিনি বাড়তি সুবিধে পেতে পারেন না। ‘কোড অফ কন্ডাক্ট’ সবার জন্যই এক। তাই কোড অফ কন্ডাক্ট-এর তিনের এইচ ধারায় তাঁকে ১৫ হাজার মার্কিন ডলার জরিমানা করা হয়েছে।

যদি নাওমি ওসাকা এই অনুরোধের পরেও তাঁর সিদ্ধান্তে অনড় থেকে সংবাদমাধ্যমকে অবহেলা করেন, এড়িয়ে চলেন, তাহলে ‘কোড অফ কন্ডাক্ট’-এর আর্টিকেল তিনের টি এবং আর্টিকেল চারের এথ্রি ধারায় তাঁকে শো কজ করা হতে পারে, ধার্য হতে পারে আরও বড় অঙ্কের জরিমানা। এই টুর্নামেন্ট থেকে বহিষ্কার এবং অন্য গ্র্যান্ড স্ল্যামে অংশগ্রহণে সাসপেনশনও আসতে পারে।

বিবৃতিতে এও বলা হয়েছে, আইন বা নিয়ম সমস্ত খেলোয়াড়ের জন্য এক। প্রত্যেকে আমাদের চোখে সমান গুরুত্বপূর্ণ; তাঁদের খ্যাতি, ব্যক্তিগত বিশ্বাস, কীর্তি যাই হোক না কেন। যে কোনও খেলার প্রাথমিক এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ শর্ত: কোনও খেলোয়াড় যাতে অন্যজনের চেয়ে  কোনও বিষয়ে প্রাধান্য বেশি না পান, তা নিশ্চিত করা।

টেনিস-সহ অন্য খেলার অনেক খেলোয়াড়ই যদিও ওসাকার এই অবস্থানের প্রশংসা করেছেন।

আরও শুনুন…

লেখা: সুশোভন প্রামাণিক
পাঠ: শ্যামশ্রী সাহা
আবহ: শঙ্খ বিশ্বাস

পোল