ও মন্ত্রীমশাই: পর্ব-৪ বক্তৃতাই সব

Published by: Susovan Pramanik |    Posted: March 14, 2021 2:48 pm|    Updated: March 14, 2021 2:48 pm

Published by: Susovan Pramanik Posted: March 14, 2021 2:48 pm Updated: March 14, 2021 2:48 pm

এই চিত্রনাট্যের কাহিনি ও সব চরিত্র কাল্পনিক। বাস্তবের কোনও ঘটনা বা চরিত্রের সঙ্গে কোনও মিল খুঁজে পাওয়া গেলে, সেটি অনিচ্ছাকৃত ও কাকাতালীয়।

–স্যার, আপনার স্পিচটা একদম রেডি করে ফেলেছি। পুরো বার্নিং স্পিচ স্যার! মানে যাকে বলে ‘জ্বালাময়ী’।

–বটে? বেশ গুছিয়ে লিখেছ তো!

–একদম বাঘা যতিন থেকে শুরু করেছি। দেখবেন কী হয়…

–আহা। আবার ওসব বাঘ-ফাঘ আনতে গেলে কেন?

–না না, বাঘ নয় স্যার; বাঘা যতিন। সেই যে স্যার, বুড়ি বালামের তীর… ইংরেজ…

–ও, তাই বলো। ইংরেজ… হে হে হে। ঠিক আছে। তবে বেশি ইংরেজি লিখো না কিন্তু। মুখস্থ করতে হবে তো।

–মাথা খারাপ স্যার! মাতৃভাষা মাতৃদুগ্ধ। তার ওপর আপনি হলেন বাংলার ঘরের ছেলে। জ্বালাময়ী বাংলায় পুরো স্পিচ নামিয়ে দিয়েছি স্যার।

–বাহ বাহ। বেশ বেশ। এই তো চাই। দাঁড়াও, এবার জিতে আসি। তোমার একদম হিল্লে করে দেব।

–একটু দেখবেন স্যার। আপনার অপনেন্ট কেনারাম বাড়ুই কিন্তু আমায় কিনতে চেয়েছিল। আমি কিন্তু ঠিক আপনার পিছনেই আছি স্যার। কলম বিক্রি করিনি।

–আমার মলমটা ওখান থেকে একটু দাও তো। মাথাটা ধরেছে। রাতে ঘুম হচ্ছে না একদম।

–এই নিন স্যার। রাতের আর দোষ কী স্যার? এরকম হাই ভোল্টেজ ইলেকশন বলে কথা!

–যা বলেছ! আচ্ছা, বলছি এবারের স্পিচে ওই প্রতিশ্রুতির ব্যাপার-ট্যাপারগুলো ঠিকমতো রেখেছ তো? ফ্লাইং ভোটারদের কিন্তু ক্যাচ করতে হবে।

–ওসব নিয়ে একদম ভাববেন না স্যার। যা দিয়েছি না… নতুন যৌবনের দূত থেকে সিন্থেটিক দুধের প্রকল্প। পুরো থরে থরে সাজিয়ে দিয়েছি!

–যৌবন…হে হে হে। বেশ বেশ। তা একটু আধটু ওসব কথা থাকা ভাল।

–তারপর স্যার প্রতিশ্রুতির কথাই যখন উঠল, তখন বলি, গতবার তো চোদ্দো দফা ছিল। এবার একদম ডাবল করে দিয়েছি। ডিজিটাল হসপিটাল থেকে মোবাইল মুদির দোকান। আপনি শুধু ভাল করে মুখস্থ করে বলবেন। আর গলার ওঠা-নামাটা একটু ঠিক রাখবেন। মানে স্যার ওই ড্রামাটিক ব্যাপারটা…

পুরোটা শুনুন উপরের প্লে বাটনে ক্লিক করে.

লেখা: অনুরাগ মিত্র
পাঠ: কোরক সামন্ত, অনুরাগ মিত্র
আবহ: শঙ্খ বিশ্বাস

পোল