আমি সৌমিত্র বলছি: পর্ব-৫ আমাকে কটূক্তি করার জন্য সেদিন ঋত্বিককে চড় মেরেছিলাম

Published by: Susovan Pramanik |    Posted: February 16, 2021 4:48 pm|    Updated: February 16, 2021 4:54 pm

Published by: Susovan Pramanik Posted: February 16, 2021 4:48 pm Updated: February 16, 2021 4:54 pm

কিংবদন্তি অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। তিনি বাঙালির অভিজাত অহংকার। তাঁর আত্মজীবনী ‘দিনের শেষে’-র এক একটি অধ্যায় শ্রোতাদের কাছে এক একটি মহার্ঘ্য রত্নের মতো। এক দীর্ঘ অন্তরঙ্গ সাক্ষাৎকারে স্বনামধন্য সাংবাদিক গৌতম ভট্টাচার্যকে তিনি উজাড় করেছেন তাঁর স্মৃতির দিনলিপি, তাঁর না বলা কথা, যা আগে কোথাও কখনও বলেননি। সেগুলোকে অত্যন্ত যত্নে-মুনশিয়ানায় গৌতম ধরে রেখেছেন, মেলে দিয়েছেন পাঠক ও শ্রোতাদের জন্য। তারই কিছু নির্বাচিত অংশ শোনাচ্ছেন গৌতম ভট্টাচার্য স্বয়ং, সংবাদ প্রতিদিন ‘শোনো‘-র শ্রোতাদের জন্য।

দিনের শেষে’ নামক এই মিনিয়েচার আত্মজীবনীতে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় এমন অনেক কথাই বলেছেন যেটা কেউ জানতই না। কিন্তু তার মধ্যে সবচেয়ে বিস্ফোরক আর বিতর্কিত হয়েছিল ঋত্বিক ঘটককে তাঁর চড় মারার ঘটনাটা। ঋত্বিক ঘটককে যে তিনি মেরেছিলেন এটা লেখায় এত রিয়্যাকশন হয় ঋত্বিকভক্তদের থেকে যে লেখাটা বেরনোর পর সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় কিছুটা বিচলিত হয়ে পড়েছিলেন। অনুরোধ করেছিলেন যদি কিছুটা নরম করে দেওয়া যায়। অথচ লেখা হয়েছিল তা–ই, যা উনি বলেছেন। এমনকী, উনি নিজে বিষয়টায় অধিক জোর দিয়ে লেখার কথাও বলেছিলেন। বলেছিলেন, সত্যিটা লেখা হোক। তাঁর বক্তব্য ছিল, টেপটা যদি শ্রোতারা শোনেন, তাহলে তাঁরাও বুঝবেন যে ওগুলো না–লেখার কোনও কারণ নেই। সৌমিত্র নিজে ঋত্বিকের বড় ভক্ত ছিলেন, যদিও ব্যক্তিজীবনে ঋত্বিককে তিনি পছন্দ করতেন না। কিন্তু ওই কলাম থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় তৈরি হওয়া বিতর্ক, কিছু কবির লেখা তাঁকে খুব বিচলিত করেছিল। তবে বিচলিত হলেও, নিজের বক্তব্য ফিরিয়ে নেওয়ার কোনও কারণ তিনি দেখেননি।

ফিরে যাওয়া যাক স্ট্রাইকের কথায়।

সেই স্ট্রাইকের দৌলতে ১০০ দিনের জন্য দুটো ভাগে বিভক্ত হয়ে যান উত্তম–সৌমিত্র। আন্দোলনকারী ও সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মতো সক্রিয় সমর্থকদের দমিয়ে রাখার ভয়াবহ চেষ্টা হয়েছিল সেইবার।

বলছেন সৌমিত্র, ‘কী করেননি প্রোডিউসররা! ওঁরা একটা স্পেশাল লিস্ট পর্যন্ত বানিয়ে রেখেছিলেন আমাদের জন্য। সবাইকে নাকি ব্যান করবেন। কিন্তু এটা কখনও হয়? সেই সময় ইন্ডাস্ট্রির যা অবস্থা, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, ভানু বন্দ্যোপাধ্যায়, রবি ঘোষ, অনুপ কুমার––– এঁদের বাদ দিয়ে ইন্ডাস্ট্রির চাকা চলবে? কোনওদিন হয়?  সেই চেষ্টা তাই কিছুদিন বাদে আপন নিয়মেই মুখ থুবড়ে পড়েছিল। আমাদের ব্ল্যাকলিস্ট করে এই দূরে সরিয়ে রাখার প্রক্রিয়া ব্যর্থ হওয়ার অন্যতম কারণ ছিল, ততদিন তো আমি স্টার হয়ে গেছি! কতদিন বয়কট করবে? সৌমিত্রকে কতদিন বসিয়ে রাখবে? একটা সময় তাই আমিাদের দাবি মেনে নিতে ওরা বাধ্য হয়। এটা কিন্তু অভিনয়জীবনের বাইরে আমার বৃহত্তম চ্যালেঞ্জ ছিল। আর তাতে যে সসম্মানে উত্তীর্ণ হয়েছিলাম, এটা আমাকে আজও খুব আনন্দ দেয়।…’

তারপর?

শুনুন…

লেখা: গৌতম ভট্টাচার্য
পাঠ: গৌতম ভট্টাচার্য
আবহ: শঙ্খ বিশ্বাস

পোল