নানা রঙে সত্যজিৎ

Published by: Susovan Pramanik |    Posted: January 5, 2021 6:16 pm|    Updated: January 18, 2021 4:32 pm

Published by: Susovan Pramanik Posted: January 5, 2021 6:16 pm Updated: January 18, 2021 4:32 pm

সত্যজিৎ রায়। তাঁর সৃষ্টি সম্ভারে যেমন বুঁদ হয়ে আছে প্রজন্মের পর প্রজন্ম আপামর বাঙালি; তেমনই সৃষ্টিশীলতার বাইরে তাঁর ব্যাক্তিত্ব, রসবোধ, ব্যাক্তিগত আদান-প্রদান নিয়ে তৈরি হয়েছে নানা জনশ্রুতি যা তাঁর সিনেমা-গল্প-সংগীতের মতোই সমান আকর্ষণীয়। কর্মসূত্রে এবং ব্যক্তিগতসূত্রে তাঁর সংস্পর্শে আসা অভিনেতা-অভিনেত্রী, লেখক-শিল্পী এবং সাংবাদিকদের অভিজ্ঞতা থেকে উঠে আসে সত্যজিতের জীবনের নানা ঘটনা এবং টুকরো মণি-মাণিক্য।

চলচ্চিত্র নির্মাণের আশায় সত্যজিৎ যখন প্রযোজকদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন এবং তাঁদের স্ক্রিপ্ট পড়ে শোনাচ্ছেন, তখন প্রযোজকরা প্রায়শই একটি বিশেষ প্রশ্ন করতেন। প্রথমে একটি দীর্ঘ হাই তুলতেন, তারপর বলতেন, ‘তাহলে আপনার ছবিতে গান নেই, অ্যাঁ!’ বারবার এহেন প্রশ্নের সম্মুখীন হওয়ায় সত্যজিৎ রায় পরের দিকে প্রযোজকদের ঘরে ঢুকে প্রথমেই বলতেন, ‘আমার ছবিতে কিন্তু গান নেই।’ তারপর স্ক্রিপ্ট পড়া আরম্ভ করতেন।

জনশ্রুতি, সত্যজিৎ রায় যখন ফিল্মের কাজ করতেন, শুটিংয়ের সময় বা অন্যান্য সময়ও, কেউ কোনও পরামর্শ দিলে সেটা শুনতেন না। নিজে যেটা ঠিক করতেন, সেটাই করতেন। অবশ্য সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়-এর অভিজ্ঞতা এক্ষেত্রে একটু অন্যরকম।

‘অভিযান’ ছবিটি করার সময়, নরসিংয়ের মুখের যে-সংলাপ সত্যজিৎ লিখেছিলেন, সেটা দেখার পর সৌমিত্র তাঁকে কিছু পরামর্শ দেন। বলেন, ‘এই বাংলা বাক্যগুলোর মধ্যে যদি একটু হিন্দি শব্দও বসিয়ে দেওয়া যায় বা একটু হিন্দি শব্দ বেশি থাকে সেক্ষেত্রে মনে হয় ব্যাপারটা আরও ভাল হবে।’ সত্যজিৎ শুনে বললেন, ‘আমাকে একটু করে দেখাও।’ সৌমিত্র করে দেখালেন। সত্যজিৎ বললেন, ‘এইভাবে রিহার্সাল করো।’ কিন্তু সংলাপটা আদৌ পরিবর্তন করেছেন কি না, নিশ্চিতভাবে কিছু বললেন না।

রিহার্সাল হল, এবার শট নেওয়ার পালা। শট নেওয়ার জন্য সব রেডি, তখনও তিনি সংলাপ নিয়ে কিছুই জানালেন না। সৌমিত্র আর থাকতে না পেরে জিজ্ঞেস করলেন, ‘মানিকদা, কোন সংলাপটা ব্যবহার করব! মানে কীভাবে বলব!’ সত্যজিৎ তখন ক্যামেরার পিছনে, মুখে রুমাল। একটু দুষ্টু হেসে, উচ্চারণভঙ্গী একটু পালটে, ভাঙা ভাঙা হিন্দিতে বলে উঠলেন, ‘সে হামার তো কুছু আপত্তি নেই। খালি ভাবছি, গুলাবির সঙ্গে লাভ সিন গুলো ঠিক কীরকম সুনাবে!’

শুনুন…

লেখা: সুযোগ বন্দ্যোপাধ্যায়
পাঠ: সুযোগ বন্দ্যোপাধ্যায়
আবহ: শঙ্খ বিশ্বাস

পোল